কিশোরগঞ্জ-৫ আসনে প্রার্থিতা ফিরে পেলেন সুব্রত পাল

৬৭

দৈনিক সময় অনলাইন ডেস্ক
আসন্ন সংসদ নির্বাচনে মনোনয়নপত্র বাছাইয়ে প্রাথমিকভাবে প্রার্থিতা বাতিলের বিরুদ্ধে নির্বাচন কমিশনে (ইসি) করা আপিলে প্রার্থিতা ফিরে পেয়েছেন কিশোরগঞ্জ-৫ (নিকলী-বাজিতপুর) আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী কেন্দ্রীয় যুব লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সুব্রত পাল।

মঙ্গলবার (১২ ডিসেম্বর) তৃতীয় দিনের শুনানি শেষে সুব্রত পালসহ ৬১ প্রার্থীর আপিল মঞ্জুর করেছে কমিশন। আর স্থগিত রয়েছে ২টি আপিল। এদিন ৯৮ জন প্রার্থীর আপিল শুনানি হয়।

- Advertisement -

প্রার্থিতা ফিরে পেয়ে সুব্রত পাল কালবেলাকে বলেন, আমি নির্বাচন কমিশনারকে ধন্যবাদ জানাই। নির্বাচন কমিশনের নিরপেক্ষ ভূমিকার কারণে আমি আমার প্রার্থিতা পদ ফিরে পেয়েছি। বিশেষ করে নিকলী-বাজিতপুর আসনের সাধারণ ভোটারদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাই, তারা মনোনয়ন বাতিলের খবর পেয়ে সৃষ্টিকর্তার কাছে আমার জন্য দোয়া চেয়েছে। তাদের দোয়া কবুল হয়েছে, আর সেই কারণে আমি মনোনয়ন ফিরে পেয়েছি। তাদের কাছে আমি চিরঋণী। আমি আশা করি, নির্বাচন কমিশন যেভাবে নিরপেক্ষতার সঙ্গে একটি অবাধ, সুষ্ঠু উৎসবমুখর পরিবেশে নির্বাচন করার জন্য এগিয়ে যাচ্ছে তা অব্যাহত রাখবে। আগামী ৭ জানুয়ারি দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে কিশোরগঞ্জ-৫ (নিকলী-বাজিতপুর) আসনের জনগণ আমাকে বিপুল ভোটের ব্যবধানে জয়যুক্ত করবে বলে আমি আশাবাদী।

আপিল শুনানিতে এ সময় প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী হাবিবুল আউয়ালের সভাপতিত্বে শুনানিতে চার কমিশনার উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে গত ৪ ডিসেম্বর মনোনয়ন যাচাই-বাছাইয়ে হলফনামায় মামলার তথ্য গোপন রাখায় সুব্রত পালের মনোনয়নপত্র বাতিল করেন জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা।

এই বিভাগের আরও সংবাদ