গাবুরা ইউপি নির্বাচনে- ৯নং ওয়ার্ডে জনপ্রিয়তার শীর্ষে সাবেক মেম্বার শেখ আজিজুল.

১১১

শেখ মোঃ মনিরুল ইসলাম বাবু
বিশেষ প্রতিনিধি

ঐতিহ্যের লীলা ভুমি সুন্দরবনের কোলঘেষে অবস্থিত ব-দ্বীপ গাবুরা ইউনিয়ন। ঘুর্নীঝড়. নদী ভাঙ্গন. জলোচ্ছাস এই ইউনিয়নের মানুষের নিত্যদিনের সঙ্গী, তার উপরে সন্ত্রাসী. জলদস্যু. ভূমিদস্যু. দখলবাজ. ধান্দাবাজ. দালাল চোর বাটপারের উৎপাত। সব মিলিয়ে চরম খারাপ অবস্থায় জীবন যাপন করে গাবুরার অসহায় মানুষ। গাবুরা ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের এই অসহায় অবহেলিত হতদরিদ্র নির্যাতিত মানুষের আস্থা ও ভালোবাসায় তাদের পাশে ছায়া হয়ে আছেন অত্যন্ত গরীব খেটে খাওয়া অতি সাধারণ পরিবারের মেজো ছেলে শেখ আজিজুল ইসলাম। সকল ষড়যন্ত্রের জাল ভেদ করে মামলা হামলার স্বীকার হয়েও আছেন অসহায় মানুষের পাশে।

- Advertisement -

২০১১ এর নির্বাচনে পরাজিত হলেও ২০১৬ এর নির্বাচনে মানুষের ভালোবাসায় বিপুল ভোটে বিজয়ী হন তিনি। জয় পরাজয় সবকিছু মিলে সকল দীধাদন্ড ভেদাভেদ ভুলে এলাকার উন্নয়নের সার্থে অসহায় মানুষের অধিকার আদায়ের লক্ষ্যে দিনরাত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন তিনি। ১২ নং গাবুরা ইউনিয়ন পরিষদের ৯ নং ওয়ার্ডের ইউ.পি সদস্য হিসেবে দায়িত্বগ্রহণ করার পর থেকে এখনো পর্যন্ত রাতদিন একাকার করে রোদ বৃষ্টি ঝড়কে উপেক্ষা করে ঘুরে বেড়াচ্ছে অসহায় অবহেলিত হতদরিদ্র ও নির্যাতিত মানুষের দ্বারে দ্বারে। কে কেমন আছেন কার কি সমস্যা খোজ খবর নিচ্ছেন প্রতিনিয়ত। তাই তো আগামী নির্বাচনে ১২ নং গাবুরা ইউনিয়ন পরিষদের ৯নং ওয়ার্ডে বর্তমান ইউ.পি সদস্য শেখ আজিজুল ইসলামের বিকল্প আর কিছুই দেখছেন না এলাকাবাসী।

কারণ অন্যরা বসন্তের কোকিলের মত আসেই ঠিকি কিন্তু সার্থ ফুরালে আর কাউকে খুজে পাওয়া যায় না। ক্ষমতা পেলে বাড়ি গাড়ি করে জায়গায় জমি কিনে বাহিরে সেটেল হয়ে যায়। অসহায় মানুষের কথা তারা ভাবেই না। কিন্তু বর্তমান মেম্বার শেখ আজিজুল ইসলাম সে জন্মগতই গরীব ক্ষমতা পেয়েও না কিনছে জমি না করছে ঘর. নাই একশতক রেকর্ডিও জমি। নদীর চরে সরকারি জায়গায় কোনো রকমে একটা ঘর বেধে বসবাস করেন তিনি। ঘর করার সাদ থাকলে সাধ্য নেই ওদের ওরা যেন মিশে আছে প্রকৃতির সাথে। জোয়ারের পানিতে তলিয়ে যায় ঘরবাড়ি ভাটাই ভেসে ওঠে। এটাই তার জীবন। হ্যাঁ ইচ্ছে করলে অসৎপথে উপার্জন করে অন্যের হক নষ্ট করে করতে পারতেন সব কিছু। কিন্তু সেটা না করে এলাকার উন্নয়নের সার্থে অসহায় মানুষের সার্থে যার যার ন্যায্য অধিকার ফিরিয়ে দিয়েছেন তিনি। করে দিয়েছেন শত ভাগ ভাতা। ভিজিএফ ভিজিডি কর্মসৃজনী কাবিখা অনুদান ত্রান সব কিছু সঠিক ভাবে বিলিয়ে দিয়েছেন অসহায় মানুষের মাঝে। করেছেন রাস্তা-ঘাটের উন্নয়ন।

সব মিলিয়ে পিছিয়ে পড়া গ্রামকে উন্নয়নের পথেই ফিরিয়ে এনেছেন আজিজুল মেম্বর। আগামী নির্বাচনে শতভাগ জয় পাবে বলে আশ্বাস দেন এলাকাবাসী। আজিজুল মেম্বর ও মানুষের দোয়া ও ভালোবাসায় ২য় বারের মত ইউ.পি সদস্য নির্বাচিত হয়ে এলাকার অসমাপ্ত কাজকে সমাপ্ত করার প্রতিশ্রুতি দেন। তিনি আরো বলেন- ছিলাম দিন মজুর সকলের দোয়ায় আল্লাহ রাব্বুল আল-আমীন গাবুরা ইউনিয়নের সবচেয়ে বড় ওয়ার্ডের দায়িত্ব দিয়েছেন। এই ওয়ার্ডের মানুষের খেদমত করার জন্য আমাকে আপনাদের কাছে পাঠায়ছে। কিন্তু আল্লাহ মেনে নিলেও আমার এলাকার কিছু মানুষ আমাকে মেম্বর হিসেবে মানতে পারিনি। একেরপর এক ষড়যন্ত্র করতে থাকে আমার উপর, বাধাগ্রস্থ্য করতে থাকে সকল কাজে। তারপরও চেষ্টা করেছি আমার সাধ্যমত সকলকে সহযোগিতা করার। আর যতদিন বাচবো মানুষের সুখে দুখে পাশে থাকবো ইনশাআল্লাহ।

এই বিভাগের আরও সংবাদ