চরভদ্রাসনের তৃতীয় ধাপের নির্বাচনে তিনটি ইউনিয়নে নৌকার পরাজয়।

১১৯

সাজ্জাদ হোসেন সাজু (বিশেষ প্রতিনিধিঃ)

ফরিদপুরের চরভদ্রাসন উপজেলার ৩টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ৩টিতেই নৌকা প্রার্থীরা পরাজিত হয়েছেন।

- Advertisement -

আর জামানত হারিয়েছেন আ.লীগের এক প্রার্থী।

জানা যায়, কোনো প্রার্থী মোট কাস্টিং ভোটের ১২.৫% ভোট না পেলে তার জামানত বাজেয়াপ্ত হয়।
চরভদ্রাসন সদর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী প্রার্থী আজাদ খান মোটরসাইকেল প্রতীকে ৫ হাজার ৭শ ৩২ভোট পেয়ে বেসরকারি ভাবে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী উপজেলা যুবলীগের সভাপতি মাহফুজুর রহমান (মুরাদ) আনারস প্রতীকে পেয়েছেন ৫ হাজার ১শ ৭৪ ভোট, নৌকা পেয়েছে ১৬২৪ ভোট।

গাজিরটেক ইউনিয়নে বিএনপির সমর্থিত প্রার্থী মোহাম্মদ ইয়াকুব আলী মোটরসাইকেল প্রতীকে ৪ হাজার ৫শ’ ১১ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী মোঃ ফরহাদ হোসেন চশমা প্রতীকে পেয়েছেন ৪ হাজার ৩৭৮ভোট।নৌকার প্রার্থী আহসানুল হক মামুন পেয়েছেন ৩০৩২ ভোট।

হরিরামপুর ইউনিয়নে বিএনপি সমর্থিত মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন টেবিল ফ্যান প্রতীকে ১ হাজার ৯শ’ ৫৮ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন, তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আ.লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী ফরিদ মোল্লা ঢোল প্রতীকে পেয়েছেন ১৪শ’ ৬৭ ভোট। এখানে নৌকা ৬৮৪ ভোট পেয়ে জামানত হারিয়েছে।

নৌকার প্রার্থীদের জামানত বাজেয়াপ্তের ব্যাপারে জানতে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ কাওছার হোসেন বলেন, স্থানীয় এমপি ও তৃণমূলের নেতাকর্মীদের মতামত উপেক্ষা করে মনোনয়ন দেয়ায় নৌকার পরাজয় হয়েছে।

তবে এ ব্যাপারে চরভদ্রাসন উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মোঃ ইসাহাক মিয়া বলেন, নৌকার এক প্রার্থীর জামানত বাজেয়াপ্ত হয়েছে । আমরা হেরে গেছি এতটুকু জানি। এর বেশি কিছু বলতে চাচ্ছিনা।তবে দলের একাধিক বিদ্রোহী প্রার্থী থাকায় নৌকার পরাজয় হয়েছে।

এই বিভাগের আরও সংবাদ