দাকোপে এক ছাত্রীকে লজ্জাস্কর অঙ্গ প্রদর্শনে থানায় মামলা, মানববন্ধন ও সমাবেশ

৫৪৮

দাকোপ(খুলনা)প্রতিনিধিঃ-

খুলনার দাকোপের বানিশান্তায় ৮ম শ্রেণীতে পড়া (১৩) এক ছাত্রীকে লজ্জাস্কর কুরুচিপুর্ণ অঙ্গ প্রদর্শনে থানায় মামলা দায়ের। দায়েরকৃত মামলায় আসামী গ্রেফতার। এ ঘটনায় ক্ষুদ্ব এলাকাবাসী দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির দাবীতে মানববন্ধন ও সমাবেশ করেছেন।

- Advertisement -

দাকোপ থানায় ছাত্রীর মা মরিয়ম বেগমের দায়েরকৃত মামলা সুত্রে জানা গেছে, গত ১ ডিসেম্বর দাকোপ উপজেলার বানিশান্ত ইউনিয়নের আমতলা বানিশান্তা নিন্ম মাধ্যমিক বিদ্যায়ের ৮ম শ্রেণীতে অধ্যায়নরত (১৩) বছরের ছাত্রী ঘটনার দিন বেলা ১১ টার দিকে নিজ বাড়ী হতে রাস্তা দিয়ে স্থানীয় হিরা বেগমের বাড়ীর সামনে গেলে পূর্ব থেকে ওৎ পেতে থাকা একই এলাকার আনোয়ার হাওলাদারের পুত্র ইকবাল হোসেন (২৬) পূর্বের ন্যায় উত্যক্ত করতে থাকে এবং ঐ ছাত্রীকে উদ্দেশ্য করে অশ্লীল অঙ্গভঙ্গি করতে করতে ছাত্রীর পরিধেয় ওড়না ধরে টানাটানি করতে থাকে।

ছাত্রী এ ঘটনার স্থানীয় ব্যক্তিদের নিকট বিচার দেওয়া হবে বলে প্রতিবাদ করলে প্রকাশে ইকবাল হাওলাদার নিজের পরিধেয় কাপড় খুলে কুরুচিপুর্ণ ও লজ্জাস্কর অঙ্গ প্রদর্শনসহ অনৈতিক কাজ করার হুমকি দেয়। এপর্যায়ে স্থানীয় মানুষ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হলে ইকবাল স্থান ত্যাক করে। উক্ত ছাত্রী বাড়ীতে এসে মায়ের কাছে ঘটনা খুলে বলে। ছাত্রীর মা মরিয়ম বেগম তাৎক্ষনিক বানিশান্তা বাজারে ভ্যান ষ্ট্যান্ডের সামনে ইকবালকে পেয়ে ঘটনার কারণ জিজ্ঞাসা করলে ইকবাল ছাত্রীর মাকে অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করে ও তার স্কুল পড়ুয়া কণ্যাকে তুলে নেওয়ার হুমকি দেয়। এ ঘটনায় ছাত্রীর মা মরিয়ম বেগম বাদী হয়ে ইকবালকে আসামী করে নারী নির্যাতন আইনে গত ০৭/১২/২০২১ তারিখে দাকোপ থানা মামলা দায়ের করেন। যার মামলা নং-২। এ ঘটনায় মামলায় অভিযুক্ত ইকবালকে থানা পুলিশ গ্রেফতার করে। আটককৃত আসামীকে গত ৮ ডিসেম্বর জেল হাজতে প্রেরণ করে।

এ ঘটনায় ক্ষুদ্ব এলাকাবাসী গতকাল বানিশান্তায় গ্রেফতার কৃত ইকবালের দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির দাবীতে মানববন্ধন ও সমাবেশ করেছেন। মানব বন্ধন ও সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় ইউপি সদস্য ফিরোজ আলী খা, তপন বিশ্বাস, উজ্বল বিশ্বাস, আবুল সানা, অমৃত বিশ্বাস, আনন্দ বিশ্বাস, পাখি বেগম, সুমি বেগম, রিনা বেগম, খুকু বিশ্বাস, কৈতর বিশ্বাস, ইতি গাইন, মীনা বিশ্বাস, মুকুল বেগম প্রমুখ।

এই বিভাগের আরও সংবাদ